About Me

Grow your Knowledge

  • Current affairs
  • General Knowledge
  • preparation of competitive exams

Facts You Don't Know about The Mona Lisa by Leonardo da Vinci

Mona Lisa


আমরা সকলেই লিওনার্দো দ্যা ভিনচি-র কথা বইতে পড়েছি ।তিনি ছিলেন রহস্যে পরিপূর্ণ ।বিজ্ঞানের প্রতিটি ক্ষেত্রে তিনি তার রহস্যের ছাপ রেখেছেন ।তাঁর শিল্পকর্মের মধ্যেও রহস্য লুকানো ছিল ।তাঁর বিখ্যাত ছবি "মোনালিসার "মধ্যেও কিছু রহস্য ও অজানা তথ্য পাওয়া যায় ।
বিভিন্ন ঐতিহাসিকদের মতে এই ছবিটির মধ্যে অনেক রহস্য লুকিয়ে আছে ।বিভিন্ন দিক থেকে দেখলে মোনালিসার হাসির পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায় ।"মোনালিসার "এই ছবিটি সাধারন কোনো কাপড় বা কাগজের উপর আঁকা হয়নি ,আঁকা হয়েছিল তিনটি কাঠের তক্তার উপর ।জানা গেছে ১৫০৩-১৫০৯সালের মধ্যে ছবিটি আঁকা হয়েছে ।অর্থাৎ তিনি ৭ বছর ধরে ছবিটি এঁকেছিলেন ।তখন তার বয়স ছিল ৫১ বছর ।এটি তার অন্য ছবিগুলির মধ্যে সবথেকে প্রিয় ছবি ,তাই তিনি এটিকে সবসময় সাথে রাখতেন ।এই ছবিটির আসল নাম মোনালিসা নয় ,আসল নাম হল মোনা  লিসা ।ইটালিয়ান ভাষায় যার প্রকৃত অর্থ My Lady |
১৭৫৭ সালে Louvre মিউজিয়ামে এই ছবিটিকে খুঁজে পাওয়া যায় ,১৯১১ সালের ২১ আগস্ট মিউজিয়ামে থেকে এই ছবিটি চুরি হয়ে যায় ,  এর  ১০বছর পর ছবিটিকে আবার খুঁজে পাওয়া যায় ।১৯৫১ সালে এক ব্যক্তি এই ছবিটিতে একটি পাথর ছুঁড়ে মারে ,যার দরুন মোনালিসার বাম হাতের কনুইয়ের দাগ হয়ে যায় ।মোনালিসার এই ছবিটিকে অলিভার মিউসিয়াম এ রাখার জন্য একটি নির্দিষ্ট ঘর বানানো হয় ।এমনকি বুলেট প্রুফ ও করা হয় ঘরটি ।ঘরটির তাপমাত্রা এমন ভাবে রাখা হয় যাতে ছবিটি কোনো ভাবে নষ্ট না হয়ে যায় ।এর জন্য প্রায় ৫০ কোটি টাকা ব্যায় করে মিউসিয়াম কর্তৃপক্ষ ।যার বর্তমান মূল্য 790 M$,OR 5380 CR(INDIA)|এছাড়াও রয়েছে মোনালিসা সম্পর্কিত অনেক রহস্যজনিত তথ্য ।
ভিনচি তাঁর কোনো গ্রন্থতেই উল্লেখ করেননি মোনালিসার কথা ,তিনি কে ছিলেন ?এই নিয়ে অনেক বৈজ্ঞানিকদের মনে রয়েছে নানান প্রশ্ন ।কারোর মতে তিনি এই ছবিটি আঁকার সময় মাদার মেরি এর কথা চিন্তা করছিলেন ,অনেকের মতে তাঁর নারীরূপটি কেমন হবে সেটি ফোটাতে চেয়েছিলেন ।ভিন্চির এক বন্ধু তাকে একটি চিঠি লিখেছিলেন যা ২০০৫ সালে পাওয়া যায় ।সেই চিঠির লেখা অনুযায়ী সেই সময় ভিনচি তার এক বন্ধু জিয়া কন্ডর ছবির উপর কর্মরত ছিলেন ।তার স্ত্রীর নাম ছিল লিসা জিয়া কন্ড ,তাদের নতুন সন্তান আর নতুন বাড়ি করার আনন্দে তিনি ভিন্চিকে তার স্ত্রীর একটা ছবি এঁকে দেওয়ার কথা বলেন ।এই সময় তিনি মোনালিসার উপরই কাজ করছিলেন।২০০৫ সালে এক বিজ্ঞানী প্যাসকেল কটেল মাল্টি লেন্সের সাহায্যে ছবিটিকে বিভিন্ন ভাগে ভাগ করে ছবি তোলেন ।তাঁর এই কার্যকলাপের মাধ্যমে জানা যায় ভিনচি যে রং দিয়ে ছবিটি এঁকেছিলেন সেটি ৪০ মাইক্রো মিটার এর মতো অর্থাৎ একটি সরু চুলের মতো ।ছবিটির মধ্যে আরও কিছু তথ্য গোপন করা আছে ।কখনো মনে হয় ছবিটি হাসছে আবার কখনো মনে হয় ঠোঁটটি একটু বাঁকা,মনে হয় যেন মোনালিসা চিন্তিত । সবচেয়ে বরো শিল্পসত্তা হলো তিনি যে আউটলাইন ব্যবহার করেন ছবির মধ্যে সেটা বোঝা সম্ভব নয়,সেই লাইন তিনি রং দিয়ে ঢেকে দেন ।এইরকম ব্যবহার কোনো শিল্পী আজ পর্যন্ত করতে পারে নি।আসল রহস্য লুকিয়ে আছে তার চোখে,তাঁর চোখ দুটি সর্বদাই হাসি খুশি লাগে কিন্তু ঠোঁটটি যেন বিষণ্ণতায় ভরা ।এছাড়াও ছবিটির মধ্যে ভিনচি এক তথ্য লুকিয়ে রেখেছিলেন ,যখন আল্ট্রা লাইট দিয়ে ছবিটি পর্যবেৰখন করা হয় তখন দেখা যায় অনেক অক্ষর ,যেগুলিকে পরপর সাজালে একটি সেনটেন্স তৈরী হয় সেটি হলো "La Risposta Si Trova Qui" এটি ইটালিয়ান ভাষায় লেখা ,যার মানে হলো "The Answers is Here"|

Post a Comment

0 Comments